আর্টকেল মার্কেটিং প্রঃ টিপস এবং ট্রিক্স

আর্টিকেল লিখে আপনার ব্যবসার প্রসারের জন্য গুরুত্ব ভূমিকা রাখতে পারেন । 

আপনাকে কেবল কয়েকটি জিনিস জানতে হবে এবং আপনাকে সহায়তা করার জন্য এখানে কয়েকটি প্রঃ টিপস এবং ট্রিক্স  উল্যেখ করা হলো। 


১. প্রথমত, আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি যা লিখছেন তা প্রাসঙ্গিক কিনা  । আপনি যদি কোন পন্য সম্পর্কে লিখতে চান তাহলে আপনার পন্যের গুনগত মান সম্পর্কে লিখুন, যদি আপনি জানেন না তবে তার সম্পর্কে কিছু গবেষণা করুন এবং তারপরে আপনার ওয়েবসাইটের একটি লিঙ্ক দিয়ে আর্টিকেল টি শেষ করুন । আর্টিকেল টি আপলোড করার আগে, আপনি যে সাইটটি তে এটি রাখার পরিকল্পনা করছেন এই সাইট এ কি তাদের বিষয়গুলির মধ্যে আপনার ক্যাটাগরীর আর্টিকেল  আছে কিনা তা যাচাই করে দেখুন ।

২. আপনি যেমন পত্রিকায় পড়েন বা টেলিভিশনে যা দেখেন ঠিক তেমনই আর্টিকেল টি সময়োপযোগী এবং সংবাদযোগ্য উভয়ই দিক বিবেচনা করে লিখুন । আর্টকেল রাইটার রা সব সময় বর্তমান বিশ্বের ঘটনা প্রবাহ সম্পর্কে খোজ খবর রাখে, এজন্য আর্টিকেল মার্কেটিং করতে বিষয় ভিত্তিক জ্ঞ্যান থাকতে হয় ও লেখার মধ্যে তাথ্যিক উপস্থাপনা বাঞ্ছনীয়  । আর্টিকেল লিখে আয় করা বা বিষয় ভিত্তিক পন্য,বস্তু ইত্যাদি নিয়ে লিখে পন্যের মার্কেটিং করা আপনাকে যেমন অর্থ উপার্জনে সক্ষম করবে তেমনি আপনার জ্ঞ্যান অর্জনের পরিধিকে দিনের পর দিন বর্ধিত করবে । আপনি ইচ্ছা করলেই ভাল একটি আর্টিকেল ফ্রিল্যান্সিং সাইট এ সাইন-আপ করে নিজেকে যাচাই করতে পারেন,আমি কি নিয়ে আর্টিকেল লিখবো সে চিন্তা বাদ দিয়ে সাইটগুলুতে যে বিষয়ের উপর লিখতে বলা হয়েছে তা নিয়ে গবেশনা করুন, এবং এক লাইন দুলাইন করে মোবাইলের নোট প্যাডে অথবা পিসির ওয়ার্ড পেডে লিখুন । তারপর সাইট এর নিয়ম মেনে আপনার প্রাসঙ্গিক আর্টিকেল লিখুন । 

৩. কিছু লেখক শুধুমাত্র  একটি আর্টিকেল পোস্ট করেন । হলিউডের চলচ্চিত্র নির্মাতাদের মতো । আপনি কারো তথ্য অনুকরন করে পোস্ট করলে তা গতানুগতিক ফিল্মের কাহিনী ভেবে পাঠক তা পড়বেনা । আপনারও এটির সিক্যুয়াল পোস্ট করা উচিত এর মধ্যে যেন নতুন তথ্য পাওয়া যেতে পারে যার দ্বারা আপনি পাঠকদের মনযোগাতে পারেন এবং জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেন । 

৪. আপনার আর্টিকেল টি ভাইরাল করা উচিত । এর সহজ অর্থ যা অন্য লোককে আপনার আর্টিকেল  কপি করে প্রকাশিত করার অনুমতি দিন এবং আর্টিকেল ক্রেডিট যেন আপনার থাকে তা বলেদিন, আর্টিকেল ক্রেডিট না দিলে কপিরাইট আইনের আওতায় পড়তে পারে তা লিখে দিন । এতে করে আপনার হুবহু আর্টিকেল অন্য আরেকজন প্রকাশ করবে । এবং তা আস্তে আস্তে ভাইরাল হবে । এটি করার আরেকটি উপায় হ'ল অন্যদের কাছে আপনার লেখা বিক্রি করতে পারেন শর্ত সাপেক্ষে । 

৫. আপনার লেখা প্রতিটি আর্টিকেল সংক্ষিপ্ত এবং সহজ হতে হবে । এটি অবশ্যই সংক্ষিপ্ত হওয়া উচিত যাতে এটি পাঠককে বিরক্ত না করে । যাতে আপনার যে বার্তাটি জানাতে চেষ্টা করছেন তা বুঝতে সক্ষম হবে ।

৬. ট্র্যাফিক বাড়াতে আপনার লেখার জন্য কতগুলি যুক্তি আবশ্যক?
 আপনার কেবল দরকার । আপনার আর্টিকেল এর জন্য- "একটি ভাল শিরোনাম হবে" চমক দেবার মতো । 
আর শিরোনাম এর  ভিত্তিতে আর্টিকেল এর মুল অংশ । 

৭. আপনি যে কোন আর্টিকেল মার্কেটিং সাইটে শুধু আর্টিকেল লিখে উপার্জন করার কথা চিন্তা না করে আপনি আপনার অন্য কোন ব্যবসার প্রোমটিংও করতে পারেন । যেমন আপনার আর্টিকেল ব্যবসা ভিত্তিক হলে আপনার নিজের ব্যবসার রেফারেল লিঙ্ক ব্যবহার করতে পারেন । যাতে করে পাঠক আপনার আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা পন্য সপর্কে জানতে পারে । এতে করে আর্টিকেলও পোস্ট হলো আর আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপনও হলো ।

৮. আর্টিকেল রাইটিং ওয়েবসাইটে আপনার লিখিত কাজ পোস্ট করার পূর্বে এগুলি নিজের হাতে রাখতে ভুলবেন না । প্রত্যেক আর্টিকেল এর অন্তত একটি করে কপি নিজের কাছে সেভ করে রাখবেন ।  আপনি যদি একই বিষয়ে 10 বা তার বেশি লিখে থাকেন তবে এগুলিকে একটি ই-বুক হিসাবে একসাথে রাখুন এবং তারপরে এটি বিনামূল্যে আপনার পাঠকদের গিফট করুন ।  । এর জন্য পাঠকরা আপনার প্রতি সন্তুষ্ট হবে এবং আপনার পরবর্তী আর্টিকেল এর জন্য অপেক্ষা করবে অথবা কমেন্টের মাধ্যমে অনুরুধ করবে । 
৯. অনেক সাইট এ (আর,এস,এস ফীড) আছে তা ব্যবহার করুন, এবং নিউজ লেটার পাবার জন্য ইমেল যুক্ত করুন ।